ডিজিটাল হলো তথ্য মন্ত্রণালয়ের ছুটি ব্যবস্থাপনা

    মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নৈমিত্তিক ছুটি ‘ই-ফাইলিংয়ের’ মাধ্যমে অনুমোদন দিয়ে ডিজিটালি ফাইল ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম শুরু করেছে তথ্য মন্ত্রণালয়।

    তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু মঙ্গলবার সচিবালয়ে তার মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন স্তরের ২৫ জন কর্মকর্তার তিন দিনব্যাপী ‘ই-ফাইলিং প্রশিক্ষণ’ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

    এর আগে কয়েকজন কর্মকর্তাকে ‘ই-ফাইলিং’ প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে জানিয়ে তথ্যসচিব মরতুজা আহমদ বলেন, মন্ত্রণালয়ের সব কর্মকর্তা-কর্মচারীর নৈমিত্তিক ছুটি ই-ফাইলিংয়ের মাধ্যমে অনুমোদন করা হচ্ছে।

    “নৈমত্তিক ছুটির আবেদন আর ফাইলের মাধ্যমে নিষ্পত্তি করা হবে না,” বলেন তিনি।

    ই-ফাইলিং প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, এটি সরকারের নীতির সঙ্গে ‘সঙ্গতিপূর্ণ’ পদক্ষেপ, কেননা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়া প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনী অঙ্গীকার।

    “২০ বছর আগেও বুঝতে পারিনি, ইন্টারনেট পৃথিবীকে এভাবে বদলে দেবে। প্রযুক্তিকে অস্বীকার করে কেউ সামনে এগোতে পারবে না।”

    বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে ‘ই-ফাইলিং’ কার্যক্রম চালু হলে তা সরকারের কাজে স্বচ্ছতা আনতে সহায়তা করবে বলে মনে করেন তথ্যমন্ত্রী।

    ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে পৌঁছাতে ই-ফাইলিং ‘গুরুত্বপূর্ণ’ মন্তব্য করে তথ্যসচিব বলেন, এ ব্যবস্থায় কোনো কর্মকর্তা ছুটিতে থেকেও ফাইল অনুমোদন করতে পারবেন।

    “সুশাসন প্রতিষ্ঠায় ই-ফাইলিংয়ের গুরুত্ব আছে, এর মধ্য দিয়ে স্বচ্ছতা নিশ্চিত হবে।”

    প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীনে পরিচালতি ‘এটুআই’ প্রকল্পের আওতায় তথ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ‘ই-ফাইলিং’ প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

    NO COMMENTS

    LEAVE A REPLY