‘সেলফি এক্সপার্ট’ এবং ১০টি তথ্য

3

বর্তমান যুগে সেলফি শব্দটি যেন সবার দৈনন্দিন জীবনের সঙ্গি। তরুনদের মধ্যে সেলফি তোলার প্রবনতা বেশি থাকলেও কম বেশি সব বয়সী লোকজনের মাঝেই রয়েছে এর বিস্তৃতি। আসুন জেনে নিই সেলফি সম্পরকে মজার কিছু তথ্য :

১। ২০১৩ সালের নভেম্বর মাসে ‘selfie’ শব্দটিকে বছরের সেরা শব্দ বলে স্বীকৃতি দেয় অক্সফোর্ড ইংলিশ ডিকশনারি।

২। সমীক্ষা বলছে, ১৯৮০ সালের পরে যাঁদের জন্ম তাঁরা গোটা জীবনে ২৫ হাজার সেলফি তুলবেন।

৩। বহু মানুষ বছরে ৫৪ ঘণ্টা অর্থাৎ দু’দিনেরও বেশি সময় সেলফি তুলে খরচ করেন।

৪। মনে করা হয়, প্রথম সেলফি তোলা হয় ১৯২০ সালের ডিসেম্বর মাসে নিউ ইয়র্ক সিটির একটি বাড়ির ছাদে।

৫। সবথেকে বেশি সেলফি পোস্ট করা হয় সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট ফেসবুকে।

৬। কীভাবে ভাল সেলফি তোলা যায় সেটা জানাতে প্রচুর মানুষ প্রতিদিন অনলাইনে খোঁজ করেন।

৭। অধিকাংশ মানুষই সেলফি পোস্ট করার আগে সেটি এডিট করে নেন।

৮। সেলফি শুধুই শখের নয়, ব্রিটেনের একটি ক্যান্সার রিসার্চ সংস্থা ২০১৪ সালে মেক-আপ ছাড়া সেলফি তোলার প্রচারাভিযান চালায়।

৯। ‘বেটি বাঁচাও, বেটি পড়াও’ অভিযানের অঙ্গ হিসেবে ২০১৫ সালে ভারতীয় পুরুষদের মেয়ের সঙ্গে সেলফি তুলে টুইটারে পোস্ট করার ডাক দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

১০। ২০১৪ সালের একটি সমীক্ষায় দেখা যায় প্রতিদিন বিশ্বে ১০ লাখ সেলফি তোলা হয়।

NO COMMENTS