email hacking

সম্প্রতি এক রিপোর্টে বলা হয়েছে যে, নেদাল্যান্ডের এক সার্ভারে অজানা এক হ্যাকার প্রায় ৭১ কোটি ১০ লক্ষ ইমেল আইডি, পাসওয়ার্ড জমা করে রেখেছে এবং সেখান থেকে এই সব ইমেইলে নিয়মিত ভাবে স্প্যাম ছড়ানো হচ্ছে।

ইমেল আইডি হ্যাক হয়ে যাওয়ার বিষয়টি প্রথম নজরে আনেন প্যারিসের একজন সাইবার বিশেষজ্ঞ, যিনি ছদ্মনাম নাম বেনকো (Benkow) হিসাবে পরিচিত। তিনি জানিয়েছেন, হ্যাকারেরা ‘অনলাইনার’ নামে একটি স্প্যামবটের (ম্যালওয়ার) সাহায্যে ইমেল হ্যাক করে সেখান থেকে যাবতীয় তথ্য সংগ্রহ করছে। অনলাইনে বিভিন্ন ব্লগ, ওয়েবসাইটে স্প্যামিং করার জন্য স্বয়ংক্রিয় নানা সফটওয়্যার ব্যবহার করে হ্যাকারেরা।

এই কাজে ব্যবহৃত সফটওয়্যারকে বলা হয় স্প্যামবট। কোনও ওয়েবসাইটে স্প্যামবট ঠেকাতে ব্যবহার করা হয় ক্যাপচা। বিশেষজ্ঞদের দাবি, বর্তমানে ওই ক্যাপচা কোড ভেঙেও সাইটের নিরাপত্তা তছনছ করে দিতে সক্ষম এই সব হ্যাকারেরা। পিক্সেল সাইজের ছবি দিয়ে তারা স্প্যাম মেসেজ পাঠায় গ্রাহকের কম্পিউটারে। এই মেসেজ ওপেন করলেই যাবতীয় তথ্য চলে আসে হ্যাকারদের নাগালে।

অস্ট্রেলিয়ার একজন সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ ট্রয় হান্ট জানিয়েছেন, অনেক বেশি পরিমাণ তথ্য হ্যাকারদের কাছে রয়েছে। নিজের ইমেল সুরক্ষিত রয়েছে কি না সেটা জানার জন্য ব্যবহারকারীদের  এই ওয়েবসাইটটি  https://haveibeenpwned.com (Have I been pwned? Check if your email has been compromised)ভিসিট করতে বলেন। সেখানে নিজের ইমেল আইডি দিলেই জানা যাবে তা হ্যাক হয়েছে কি না।

NO COMMENTS