বাংলাদেশ সরকারের অনুরোধে ২৪% গোপন তথ্য দিল ফেসবুক

গত বছরের দ্বিতীয়ার্ধে (জুলাই-ডিসেম্বর) মোট ৪৯টি অনুরোধের মাধ্যমে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ৫৭ জন ব্যবহারকারীর তথ্য চাওয়া হয়েছিল। (Facebook provide information to Bangladesh Govt.) এর মধ্যে ২৪ শতাংশ তথ্য ফেসবুক কর্তৃপক্ষ সরকারকে দিয়েছে বলে তাদের সর্বশেষ ‘গভার্নমেন্ট রিকোয়েস্ট রিপোর্ট’ এ বলা হয়েছে।

এবারের ৪৯টি অনুরোধের মধ্যে ২৪টিতে মোট ৩২টি অ্যাকাউন্টের তথ্য চেয়েছিল সরকার। এর ৮.৩৩ শতাংশ তথ্য ফেইসবুক দিয়েছে।আর ২৫টি অ্যাকাউন্টের বিষয়ে ছিল ‘জরুরি’ অনুরোধ। তার ৪০ শতাংশ ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ পূরণ করেছে।

শুক্রবার প্রকাশিত এই ষান্মাষিক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফৌজদারি অভিযোগের তদন্ত চলায় বাংলাদেশ সরকারের অনুরোধে ১৫টি অ্যাকাউন্টের রেকর্ড ৯০ দিন পর্যন্ত সংরক্ষণ করবে ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ।

তার আগে জানুয়ারি-জুন সময়ে ১০টি অনুরোধের মাধ্যমে বাংলাদেশ সরকার নয়জন ব্যবহারকারীর তথ্য চাইলে ২০ শতাংশ তথ্য দিয়েছিল ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ।

নিরাপত্তা মহড়ার অংশ হিসেবে গতবছর অগাস্টে বাংলাদেশ থেকে সাময়িকভাবে ফেইসবুক ব্যবহার করতে না পারার বিষয়টিও এবারের প্রতিবেদনে এসেছে।

ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন দেশের সরকার ও সংস্থাকে ব্যবহারকারীদের কতোটা তথ্য দিচ্ছে তা বছরে দুই বার প্রতিবেদন আকারে প্রকাশ করা হচ্ছে ২০১৩ সাল থেকে। বাংলাদেশ সরকারের এ ধরনের অনুরোধ ২০১৫ সালের দ্বিতীয়ার্ধে প্রথমবার ফেইসবুকের সাড়া পায়।
ওই বছর জুলাই-ডিসেম্বর সময়ে ১২টি অনুরোধের মাধ্যমে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ৩১ জন ব্যবহারকারীর তথ্য চাওয়া হয়েছিল। এর মধ্যে ১৬ দশমিক ৬৭ শতাংশ তথ্য ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ সরকারকে দেয়। পাশাপাশি চারটি ‘কনটেন্ট’ দেখার সুযোগ বন্ধ করা হয় বলে ওই সময়ের প্রতিবেদনে জানানো হয়।

তার আগে ২০১৩ সালের জানুয়ারি থেকে ২০১৫ সালের জুন পর্যন্ত আড়াই বছরে মোট ৩৭ জন ব্যবহারকারীর তথ্য চেয়ে ফেইসবুক কর্তৃপক্ষের কোনো সাড়া পায়নি বাংলাদেশ সরকার।

এরপর ফেইসবুক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করে টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম তাদের সঙ্গে সরকারের ‘সমঝোতা’ হওয়ার কথা জানান। এর ধারাবাহিকতায় এপ্রিলের মাঝামাঝি সময়ে সরকারের অনুরোধে ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশের ‘অতি গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের (ভিআইপি) নামে খোলা’ বেশ কিছু ভুয়া পেইজ ও ভুয়া অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়।

২০১৬ সালের জানুয়ারি-জুন সময়ে বিভিন্ন দেশের সরকার ৫৯ হাজার ২২৯টি অ্যাকাউন্টের তথ্য চেয়েছিল, পরের ছয় মাসে সেই সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৬৪ হাজার ২৭৯টি। যুক্তরাষ্ট্র ও ভারত আগের মতই এ তালিকায় শীর্ষে রয়েছে।

তার আগে ২০১৩ সালের জানুয়ারি থেকে ২০১৫ সালের জুন পর্যন্ত আড়াই বছরে মোট ৩৭ জন ব্যবহারকারীর তথ্য চেয়ে ফেইসবুক কর্তৃপক্ষের কোনো সাড়া পায়নি বাংলাদেশ সরকার।

সরকারি হিসেবে বাংলাদেশে ফেইসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় তিন কোটি। আর বিশ্বে এই সংখ্যা ১৮৬ কোটির বেশি, যা পৃথিবীর মোট জনসংখ্যার এক চতুর্থাংশ।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY