জম্মু-কাশ্মীরে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ ও টুইটার বন্ধ

সরকারি এক নির্দেশে জানানো হয়েছে, জম্মু-কাশ্মীরের বর্তমান প্রেক্ষিত বিবেচনা করে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ ও টুইটারসহ মোট ২২টি সোশ্যাল মিডিয়া সাইট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।(Facebook, twitter, whatsapp banned in Jumbo-Kashmir) উপত্যকা সংক্রান্ত কোনও ছবি, মেসেজ, ভিডিয়ো সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটের মাধ্যমে কাশ্মীরে ছড়ানো যাবে না। পরবর্তী নির্দেশ না-আসা পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে।

যেসব সোশ্যাল মিডিয়া বন্ধ করা হয়েছে, তার কয়েকটি হল QQ, WeChat, Ozone, Tumblr, Google+, Baidu, Skype, Viber, Line, Snapchat, Pinterest, Telegram, Reddit, Snapfish, YouTube (Upload), Vine, Buzznet, Xanga এবং Flickr।

নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে জঙ্গি কমান্ডার বুরহান ওয়ানি নিহত হওয়ার পর থেকেই দফায় দফায় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে উপত্যকা। মাঝে কিছুদিনের জন্য আন্দোলন স্তিমিত হলেও, সম্প্রতি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ফের অশান্তি মাথাচাড়া দেয়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় রাশ টানতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশে গত ১৭ এপ্রিল থেকেই থ্রি-জি ও ৪জি মোবাইল পরিষেবা বন্ধ রয়েছে কাশ্মীরে। এমনকী ব্রডব্যান্ড পরিষেবাও ২জি স্পিডে নামিয়ে আনা হয়েছে।

নিষেধাজ্ঞা চাপানোর কারণ হিসেবে বলা হয়, একটা মহল সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটের অপব্যবহার করছে। যার জেরে উপত্যকা অঞ্চলের শান্তি বিঘ্নিত হচ্ছে।

কাশ্মীরে আন্দোলনের নামে কী ভাবে সিআরপিএফ জওয়ানদের নিগ্রহ করা হচ্ছে, সেই ফুটেজের পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়ায় একইরকম ভাবে ভাইরাল হয় ওঠে প্রতিবাদীদের উপর জওয়ানদের অত্যাচারের ভিডিয়ো। যার জেরে উপত্যকার পরিস্থিতি আরও জটিল হয়ে উঠতে থাকে।

সূত্রঃ- বিবিসি

NO COMMENTS