নতুন ধারার সামাজিক মাধ্যম হবে ‘গুগল আর্থ’

গুগল আর্থের পরিচালক রেবেকা মুর বলেন, গুগল আর্থ সামাজিক মাধ্যম হিসেবে তৈরি হবে

ব্রাজিলের সাও পাওলোতে একটি ‘ভয়েজার টুল’ প্রকল্প উদ্ভাবনের সময় গুগল আর্থের পরিচালক রেবেকা মুর নিজেদের পরিকল্পনার কথা জানান। তিনি বলেন, গুগল আগামী কয়েক বছরের মধ্যেই গুগল আর্থকে একটি সামাজিক মাধ্যম হিসেবে তৈরি করবে। এর নতুন সংস্করণে গুগল আর্থের যেকোনো স্থানেই ব্যবহারকারীরা নিজেদের অভিজ্ঞতা, ছবি বা ভিডিও পোস্ট করার সুবিধা পাবেন।

ব্রাজিলে ‘আই অ্যাম দ্য অ্যামাজন’ প্রকল্পটি উন্মুক্ত করেন রেবেকা। অ্যামাজন বনাঞ্চলের বিভিন্ন উৎসের বিস্তারিত নিয়ে ১১টি স্থানের মানচিত্র তৈরি করা হয়েছে। ভয়েজার টুলটি দিয়ে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা সেখানকার বিভিন্ন স্থানের তথ্য এবং ছবিসহ ম্যাপ দেখতে পারবেন।

গুগল আর্থ প্রসঙ্গে রেবেকা আরও বলেন, ‘গুগল আর্থ পৃথিবীর কাছে আমাদের একটি উপহার আর উপহার বিনা মূল্যেই দিতে হয়। কেননা, গুগল বিজ্ঞাপন থেকে চমৎকার রাজস্ব আয় করছে এবং গুগলকে সবকিছু থেকে অর্থ উপার্জন করতে হবে না।’

নিয়মিত ব্যবহারকারীরা ব্যক্তিগত বা জনসাধারণের জন্য নিজেদের যেকোনো বিষয়বস্তুও তৈরি করতে পারবেন। এগুলো হতে পারে ব্যবহারকারীর ভ্রমণের অভিজ্ঞতা কিংবা স্থানীয় কোনো ঐতিহাসিক স্থানের বর্ণনা।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY