interesting-facts-about-mark-zuckerberg-you-never-knew

১৪ মে ছিল ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নিবার্হী কর্মকর্তা মার্ক জুকারবার্গের জন্মদিন। এবারের জন্মদিনের মূল আকর্ষণ ছিল তার কন্যা। জুকারবার্গ তার ফেসবুকে পেজে জানিয়েছেন, তিনি ৩২ বছর বয়স পার করলেন। দিনটি তার কাছে স্মরণীয় হয়ে থাকবে। কেননা, ক্যালিফোর্নিয়ার ফেসবুক অফিসে উপস্থিত হয়েছিল ম্যাক্স। জন্মদিন উপলক্ষে তাঁর সম্পর্কে অবাক করা কিছু তথ্য-

১. মার্ক হাই স্কুলে থাকতেই, এওএল (AOL) এবং মাইক্রোসফট (Microsoft) মত বিভিন্ন বড় কোম্পানি তাকে চাকরি দিতে চেয়েছিলেন, কিন্তু তিনি সেটা তিনি সানন্দে অস্বীকৃতি জানান ।

২। তিনি প্রায় প্রতিদিন একই ধূসর রঙের (Gray Facebook T-shirt) ফেসবুক টি-শার্ট পরেন, কারণ তিনি ব্যস্ত এবং এটা তাকে সকালের সময়কে সেভ করতে সাহায্য করে।

৩। মার্ক অবাক হয়েছেন যে তিনি চার বছরে ১৯ বার মাত্র টুইট করেছেন, এবং ১৫ মাসে একবারও করেননি, কিন্তু তা সত্ত্বেও টুইটারে তার ২২০,০০০ অনুগামী রয়েছে।

৪। মাত্র ১২ বছর বয়সে Zuckerberg তার পিতার ডেন্টাল ক্লিনিক জন্য একটি প্রোগ্রামিং সিস্টেম উদ্ভাবন করেন, যা্তে রিসেপশনিস্ট নতুন রোগীদের সম্পর্কে তাকে অবহিত করতে পারে

৫। হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সহপাঠীদের সঙ্গে জুকারবার্গ ফেসবুক প্রথম চালু করেন হার্ভার্ডের ছাত্রাবাসের বিভিন্ন রুমের মধ্যে সংযোগ রক্ষার জন্য।

৬। ফেসবুকের সাফল্যের দৌলতে ২০০৭ সালে মাত্র ২৩ বছর বয়সেই ১০০ কোটি মার্কিন ডলারের মালিক হয়ে যান মার্ক।

৭। তার বাবা-মা তরুণ জুকারবার্গের সঙ্গে কাজ করার জন্য একজন কম্পিউটার গৃহশিক্ষক ঠিক করেন, কিন্তু গৃহশিক্ষকের চেয়ে এগিয়ে থাকার কারনে কঠিন হয়ে ওঠে তাকে কম্পিউটার শেখানো, পরবর্তীতে মার্ককে “দৈত্য” হিসেবে উল্লেখ করে গৃহশিক্ষক তার চাকরী ছেড়ে চলে জান।

৮। ২০১০ সালে জুকারবার্গের জীবন অবলম্বনে হলিউডে তৈরি হয় ‘দা সোশ্যাল নেটওয়ার্ক’ নামের একটি ফিল্ম।

৯। ফেসবুকের পাশাপাশি জুকারবার্গ ও তাঁর বন্ধুরা শুরু করেছিলেন আর একটি সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট যার নাম ছিল ফেসম্যাশ (Facemash)। এই সাইটে দুটি ছাত্র বা ছাত্রীর ছবি পাশাপাশি রেখে তাদের চেহারার তুলনা করা হত কে বেশী সুন্দর।

১০। ২০০৪ এর ৪ ফেব্রুয়ারি ফেসবুক যখন তার যাত্রা সূচনা করে তখন তার নাম রাখা হয়েছিল ‘দি ফেসবুক’।

১১। ২০১৩ সালের অগস্ট মাসে ৫০০ কোটি মানুষের কাছে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্য নিয়ে মার্ক একটি ‌‌প্রোজেক্ট শুরু করেন যার নাম ছিল ‘ইন্টারনেট ডট ওআরজি’ (Internet.org)।

১২। মার্ক ফেসবুকের সিইও হি‌সেবে মাত্র ১ ডলার বেতন নেন প্রতি মাসে।

১৩। ইবোলা ভাইরাস মহামারির আকার ধারণ করলে তার প্রতিরোধকল্পে মার্ক ২৫ মিলিয়ন ডলার ব্যয় করেছিলেন।

১৪। জুকারবার্গ “Giving Pledge” – এ স্বাক্ষর করে অঙ্গীকার করেছেন যে, সে তার সম্পদের কমপক্ষে ৫০% দান করে দিবেন।

১৫। মার্কের বর্তমান সম্পত্তির পরিমাণ প্রায় ৩৬০০ কোটি ডলার।

১৬। আপনি যদি এটা @[4: 0] ফেসবুক কমেন্ট উইন্ডোতে টাইপ করেন, তাহলে তার নাম প্রদর্শিত হবে ।

NO COMMENTS