এই প্রান্তিকে ৪.১০ কোটি আইফোন বিক্রি, ছাড়িয়ে গেল বিশ্লেষকদের পূর্বাভাস

আইফোন ৮ ছাড়ার আগের প্রান্তিক হওয়ায়, এটি কিছুটা ‘মন্দা’ যাবে বলেই ধারণা করেছিলেন কেউ কেউ। কিন্তু অর্থবছরের তৃতীয় প্রান্তিকে প্রত্যাশার চেয়ে বেশি আইফোন বিক্রির কারণেই সর্বশেষ প্রান্তিকে অ্যাপলের আয় বিশ্লেষকদের প্রত্যাশ্যা আর সব পূর্বাভাস ছাড়িয়ে গেছে। এই প্রান্তিকে ৪.১০ কোটি আইফোন বিক্রি করেছে অ্যাপল। এখন পর্যন্ত ১২০ কোটি আইফোন বিক্রি করেছে মার্কিন টেক জায়ান্ট অ্যাপল।

এর আগে অ্যাপলের সর্বোচ্চ শেয়ারমূল্য ছিল ১৫৬.৬৫ ডলার। যদি প্রতিষ্ঠানটির শেয়ারমূল্য বৃদ্ধির ধারা আরও একদিন বজায় থাকে তবে অ্যাপলের বাজারমূল্য ৮৩০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে পৌঁছাবে, যা প্রতিষ্ঠানটির জন্য নতুন রেকর্ড হবে।

অ্যাপল প্রধান টিম কুক বলেন, “আপনি যদি পণ্যগুলোর দিকে তাকান, আমরা ৪.১০ কোটি আইফোন বিক্রি করেছি।” তিনি আরও বলেন, “আপনি যদি বিশ্বজুড়ে তাকান, এশিয়া, দক্ষিণ আমেরিকা ও মধ্যপ্রাচ্যে আমাদের কয়েকটি বাজার আছে যেখান থেকে আয়ের প্রবৃদ্ধি আগের বছরের তুলনায় ২৫ শতাংশেরও বেশি। আপনি যদি আইফোন আইফোন ৭ আর আইফোন ৭ প্লাস-এর দিকে তাকান, আগের বছরের ৬এস প্লাস-এর তুলনায় আমাদের প্রবৃদ্ধি দুই অংকের। আইফোন দুর্দান্ত পারফর্ম করছে।”

সেইসঙ্গে আরেকটি বড় লক্ষ্যও অর্জন করেছে অ্যাপল। অ্যাপ স্টোর অ্যাপলের সেবা বিভাগ রেকর্ড গড়া উঁচুতে নিয়ে গেছে, এটি এখন একটি ফরচুন ১০০ প্রতিষ্ঠানের সমান। ফরচুন ১০০ প্রতিষ্ঠান বলতে প্রতিষ্ঠানগুলোর নিজ নিজ অর্থবছরের মোট আয়ের উপর ভিত্তি করে মার্কিন সাময়িকী ফরচুন-এর বানানো তালিকার শীর্ষ একশ’ প্রতিষ্ঠানকে বোঝায়।

এই ঘোষণা দেওয়ার কয়েকঘণ্টা পর অ্যাপলের প্রতি শেয়ারমূল্য ছয় শতাংশ বেড়ে ১৫৭ ডলারের উপরে চলে যায়।

থমসন রয়টার্স-এর বিশ্লেষণায় এই প্রান্তিকে অ্যাপলের আয় ৪৪৮৯ কোটি ডলার হবে বলে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছিল। এটি ছাড়িয়ে অ্যাপলের আয় হয়েছে ৪৫৪০ কোটি ডলার। আরেক পূর্বাভাসে আইফোন বিক্রির সংখ্যাটা ৪.০৭ কোটি বলা হলেও, বিক্রি হয়েছে ৪.১০ কোটি।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY