zunaid ahmed palak

আগামী ৪ মে রাজধানীর কৃষিবিদ ইন্সটিটিউশন  মিলনায়তনে ‘জাতীয় মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন পুরস্কার’ এর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে (national mobile application award will be distributed on May 4)।

বুধবার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এ আয়োজনের বিস্তারিত তুলে ধরেন বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, “দেশসেরা মোবাইলভিত্তিক উদ্যোগগুলোকে এগিয়ে নিতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ দ্বিতীয়বারের মত এ আয়োজন করতে যাচ্ছে।

ইতোমধ্যে গত ৩ মার্চ থেকে এ প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে আগ্রহীদের অ্যাপ জমা নেওয়া শুরু হয়েছে।

আগামী ১৯ এপ্রিল পর্যন্ত আগ্রহীরা তাদের অ্যাপ জমা দিতে পারবে জানিয়ে পলক বলেন, “মূলত নতুন অ্যাপ, বিশেষ করে তরুণদের ইনোভেটিভ প্রকল্প এখানে আশা করা হচ্ছে, যেখান থেকে কয়েকটি অ্যাপ যেন বড় পরিসরে তুলে ধরার সুযোগ পায়।”

এ পর্যন্ত আটটি ক্যাটাগরিতে সর্বমোট ২৯৩টি অ্যাপ জমা পড়েছে জানিয়ে পলক বলেন, প্রতিটি ক্যাটাগরি থেকে তিনজন করে মোট ২৪ জন অ্যাপ নির্মাতাকে পুরস্কৃত করা হবে। এসব ক্যাটাগরিতে মোবাইল ও ডিজিটাল কনটেন্ট প্রস্তুতকারী কোম্পানি, ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান অংশ নিচ্ছে।

উল্লেখ্য, পতিযোগিতায় অংশ নিতে আগামী ১৯ এপ্রিলের মধ্যে আবেদন করতে হবে। নিবন্ধন ও মনোনয়ন জমা দেয়ার জন্য http://appaward.ictd.gov.bd/ এই লিংকে প্রবেশ করতে হবে।

সরকারের আইসিটি বিভাগ ও ওয়ার্ল্ড সামিট অ্যাওয়ার্ড এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত প্রতিযোগিতামূলক এই অনুষ্ঠানে বিজয়ীরা ওয়ার্ল্ড সামিট মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন পুরস্কারের গ্লোবাল প্রতিযোগিতার জন্য সরাসরি মনোনীত হবেন।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ ও ওয়ার্ল্ড সামিট অ্যাওয়ার্ডের যৌথ উদ্যোগে জাতীয় মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন পুরস্কার ২০১৭ আয়োজিত হচ্ছে। এই প্রতিযোগিতায় সহযোগী গুগল ডেভলপার গ্রুপ সোনারগাঁও এবং গুগল ডেভলপার গ্রুপ বাংলাদেশ।

সংবাদ সম্মেলনে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব সুবির কিশোর চৌধুরী, বেসিস সভাপতি মোস্তফা জব্বারসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন ।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY