বের হল র‍্যানসমওয়্যার ভাইরাস থেকে বাঁচার উপায়

১২ মে এ র‍্যানসমওয়্যার আক্রমণ শুরু হয়। এতে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে কম্পিউটার ব্যবহারকারীকে অর্থ পরিশোধ করতে বলা হয়। তা না হলে পুরো ফাইল নষ্ট করে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়। ১৫০টি দেশের তিন লাখের বেশি পিসিতে আক্রমণ করে এ ম্যালওয়্যার। (protection found of ransomware virus )

ওয়ানাক্রাই নামের র‍্যানসমওয়্যার ভাইরাস কোনো পিসিতে আক্রমণ করে ফাইল আটকে ফেললেও তা উদ্ধার করার পথ খুঁজে পাওয়া গেছে। ফ্রান্সের একদল গবেষক ওয়ানাক্রাই দিয়ে আক্রান্ত এনক্রিপটেড উইন্ডোজ ফাইল খোলার একমাত্র সমাধানটি বের করেছেন।

কম্পিউটারে বা মোবাইলে ক্ষতিকর প্রোগ্রামের লিংকসহ আসা ই-মেইলকে ম্যালওয়্যার বলা হয়। এই ম্যালওয়্যার ফাইল খুলতে বাধা দিলে ও অর্থ দাবি করলে সেটা র‍্যানসমওয়্যার নামে পরিচিত।

গবেষকেরা বলেন, তাঁরা এখন পর্যন্ত যে সমাধান বের করেছেন, তা কেবল কিছু শর্ত মেনে কাজ করতে পারে। শর্তগুলোর মধ্যে রয়েছে আক্রান্ত হওয়ার পর থেকে কম্পিউটার রিবুট হওয়া যাবে না। এ ছাড়া ফাইল পুরোপুরি লক হওয়ার আগেই এই সমাধান কাজে লাগাতে হবে।

নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞদের মধ্যে রয়েছেন ফ্রান্সের অ্যাড্রিয়েন গুইনেট, বেঞ্জামিন ডেলপি, ম্যাথিউ সুচি প্রমুখ। আন্তর্জাতিকভাবে পরিচিত হ্যাকার ম্যাথিউ সুচি এক ব্লগ পোস্টে ওয়ানাক্রাইয়ের প্রতিষেধকের কারিগরি বিষয়ে বিস্তারিত লিখেছেন। সেখানে তিনি একটি সফটওয়্যার টুল ‘ওয়ানাকি বিল্ট বা গুইনেট’–এর লিংক দিয়েছেন। তিনি একে একমাত্র কার্যকর সমাধান বলে উল্লেখ করেছেন। এ টুল উইন্ডোজের সব সংস্করণে (উইন্ডোজ ৭, এক্সপি, ২০০৩) কাজ করবে বলে তিনি উল্লেখ করেছেন।
ব্লগের লিংক: ওয়ানাক্রাই নামের র‍্যানসমওয়্যার ভাইরাস থেকে বাঁচার উপায় 

গবেষকেরা তাঁদের তৈরি টুলটির নাম দিয়েছেন ওয়ানাকিউয়ি (WannaKiwi)। এটি মূলত কম্পিউটার মেমোরিতে ডিক্রিপশন কির অবশিষ্টাংশ অনুসন্ধান করে কাজ শুরু করে। তাই কম্পিউটার বন্ধ করা হলে এটি কাজ করে না। এ টুলটি বিনা মূল্যে দিচ্ছেন তাঁরা।

রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতের স্টেলার নামের একটি তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ওয়ানাক্রাই র‍্যানসমওয়্যারে আক্রান্ত পিসির তথ্য উদ্ধারে সফল হওয়ার দাবি করেছে। তারা বিনা মূল্যের একটি সফটওয়্যার ছেড়েছে যা তথ্য উদ্ধার করতে সক্ষম। তাদের এ সফটওয়্যারটির নাম Stellar Phoenix Windows Data Recovery Free Edition।

স্টেলার ডেটা রিকভারির প্রধান নির্বাহী সুনীল চন্দন বলেন, দিল্লি, চণ্ডীগড়, কলকাতা ও কচির পাঁচটি ওয়ানাক্রাই আক্রান্ত পিসির সমস্যা সমাধান করেছেন তাঁরা। ইতিমধ্যে এ র‍্যানসমওয়্যারটির সম্ভাব্য দুর্বলতা খুঁজে পেয়েছেন তাঁরা। এরপর তাদের ডেটা রিকভারি সফটওয়্যারটি হালনাগাদ করেছেন। চন্দন বলেন, উইন্ডোজের জন্য তাঁদের বিনা মূল্যের সংস্করণটি ব্যবহার করে তথ্য উদ্ধার করা যাবে।

চন্দন দাবি করেন, মাই ডকুমেন্টস ও ডেস্কটপে রাখা তথ্য বাদে আক্রান্ত যন্ত্রে সব তথ্য এ সফটওয়্যারের বিনা মূল্যের সংস্করণ ব্যবহার করে উদ্ধার করা যাবে। যে পিসি বা ল্যাপটপ আক্রান্ত হয়নি, তাতে ডেটা উদ্ধারের সফটওয়্যারটি ইনস্টল করতে হবে। এরপর আক্রান্ত পিসির হার্ডড্রাইভের সঙ্গে যুক্ত করে স্ক্যান করতে হবে। এতে কোনো অর্থ পরিশোধ ছাড়াই তথ্য উদ্ধার করা সম্ভব।

সূত্র: রয়টার্স।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY