উইন্ডোজ পিসিতে অ্যান্টিভাইরাস সাময়িক ভাবে বন্ধ

উইন্ডোজ পিসিতে অ্যান্টি-ভাইরাস বন্ধের কথা স্বীকার করেছে মাইক্রোসফট। ইউরোপিয়ান কমিশন-এর কাছে নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান ক্যাসপারস্কি’র করা অভিযোগের প্রেক্ষিতে এই স্বীকারোক্তি দিয়েছে উইন্ডোজ নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি।

মাইক্রোসফট-এর পক্ষ থেকে বলা হয়, তারা উইন্ডোজ ১০ ব্যবহারকারীদের নিরাপদ রাখতে সুরক্ষা ব্যবস্থা নিয়েছে।

চলতি মাসের শুরুতে নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান ক্যাসপারস্কি ল্যাব মাইক্রোসফট-এর বিপক্ষে এই অভিযোগ দাখিল করে। ক্যাসপারস্কি’র দাবি, নিজেদের অ্যান্ট-ভাইরাস সফটওয়্যার ব্যবহারে গ্রাহকদের নিয়ে যেতে মাইক্রোসফট তাদের বাজারে থাকা আধিপত্যের অপব্যবহার করেছে।

প্রতিদিন সৃষ্টি হওয়া ও ছড়াতে থাকে তিন লাখ নতুন ম্যালওয়্যার-কে ঠেকাতে বাইরের অ্যান্টিভাইরাস প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে মিলে কাজ করার কথাও জানিয়েছে মাইক্রোসফট। প্রতিষ্ঠানটির হিসাব মতে, ৯৫ শতাংশ উইন্ডোজ ১০ পিসিতে সর্বশেষ আপডেটের সঙ্গে চলে এমন অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করা হচ্ছে।

ক্যাসপারস্কির করা দাবিকে সরাসরি নির্দেশ না করে মার্কিন টেক জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি বলে, তারা উইন্ডোজ ডিফেন্ডার অ্যান্টিভাইরাস-কে উইন্ডোজ ১০-এর সঙ্গে বান্ডল করে দিয়েছে যাতে প্রতিটি ডিভাইসকে ভাইরাস ও ম্যালওয়্যার থেকে সুরক্ষিত রাখা নিশ্চিত করা যায়।

মাইক্রোসফটের এন্টারপ্রাইজ ও নিরাপত্তা খাতের উইন্ডোজ ও ডিভাইসেস বিভাগের অংশীদার পরিচালক রব লেফার্টস বলেন, “উইন্ডোজ ১০ ডিভাইস সবসময় ভাইরাস আর ম্যালওয়্যার থেকে সুরক্ষিত, আমাদের গ্রাহকদের এমন প্রতিশ্রুতি দিতেই আমরা উইন্ডোজ ডিফেন্ডার অ্যান্টিভাইরাস বানিয়েছিলাম।”

 

NO COMMENTS