প্রযুক্তি বিষয়ক কোম্পানির আইনি অভিযোগে ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা স্থগিত

Credit:- BBC News

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ‘মুসলিম ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা’র বিরুদ্ধে আইনি অভিযোগ দাখিল করেছে অ্যাপল, ফেসবুক, গুগল, মাইক্রোসফট, ইন্টেল, ই-বে, উবার, টুইটার সহ প্রায় একশত প্রযুক্তি বিষয়ক কোম্পানি। তাতে বলা বলেছে, ওই নিষেধাজ্ঞার ফলে যুক্তরাষ্ট্রে তাদের ব্যবসা, ব্যবসায় নতুন কিছু প্রবর্তন ও মুনাফা মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

Credit:- Twitter

তবে এরই মধ্যে ট্রাম্পের নির্বাহী ক্ষমতার ওই আদেশ স্থগিত করেছেন ওয়াশিংটনের বিচারক জেমস রবার্ট। তার পর পরই তার আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করেছে ট্রাম্প সরকার। সেই আপিলেও হেরে যায় সরকার। এর ফলে যুক্তরাষ্ট্রে শরণার্থীদের জন্য উন্মুক্ত হয়ে যায় দরজা। যে সাতটি মুসলিম দেশের ওপর যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছিল তাদের সামনের বাধা দূর হয়ে যায়। এতে বিচারকদের ওপর ভীষণ ক্ষুব্ধ হন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তাই তিনি ওই রায় দেয়া বিচারককে ‘তথাকথিত’ বিচারক হিসেবে আখ্যায়িত করেন। বলেন, তারা দেশটাকে নরকের দিকে নিয়ে যাচ্ছেন। এ সময় ট্রাম্প বলেন, দেশে যদি কোনো কিছু ঘটে যায় তাহলে তার জন্য দায়ী থাকবেন ওই বিচারক ও বিচারিক ব্যবস্থা বা আদালত।

প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোর এমন দাবির প্রতি সমর্থন দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রী ম্যাডেলিন অলব্রাইট ও জন কেরি। তারা বলেছেন, ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশ যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তাকে খর্ব করছে। বিভিন্ন ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্রের সেনারা ঝুঁকির মুখে পড়ছেন।

ডোনাল্ড ট্রাম্প টুইটে বলেন, বিচারক যুক্তরাষ্ট্রকে সন্ত্রাসীদের জন্য জায়গা করে দিয়েছেন। এতে বাজে মানুষরা খুবই খুশি হয়েছে। তিনি এ রায়কে ‘রিডিকিউলাস’ বা উদ্ভট রায় হিসেবে আখ্যায়িত করেন। বিচারককে বলেন ‘সো কলড’ বা তথাকথিত বিচারক।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY