Home ফেসবুক ফেসবুকে চাকরী ইন্টারভিও | ফেসবুক কি প্রশ্ন করে ?

ফেসবুকে চাকরী ইন্টারভিও | ফেসবুক কি প্রশ্ন করে ?

620
0
facebook

সারা বিশ্বের আইটি প্রফেসনালদের স্বপ্ন থাকে ফেসবুক অথবা গুগলে চাকরী পাওয়া। সম্প্রতি অনলাইনে বিজনেস ইনসাইডার ফেসবুকের চাকরীর ইন্টারভিও ধরন সম্পর্কে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

চাকরীক্ষেত্রে ফেসবুক শুধুমাত্র আমেরিকায় সেরা জায়গা নয় – এটা বিশ্বের আইটি প্রফেসনালদের সবচেয়ে আকাঙ্খিত একটি কর্মস্থল। বর্তমানে বিশ্বের ৬৪টি অফিস জুড়ে ১৩,০০০ কর্মচারী আছে এবং প্রতিনিয়ত এর আকার বেড়েই চলছে।

ফেসবুকে চাকরি নিতে একটি প্রশ্ন খুব বেশি  জিজ্ঞাসা করা হয়। প্রতিযোগিতামূলক এই চাকরী ক্ষেত্রে কর্মী বাছাইয়ে বেশ সাবধান থাকতে হয় । গদবাধা কিছু প্রশ্নের বাইরে ফেসবুকে চাকরীর যোগ্যতা হিসাবে গ্লোবাল হেড অব রিক্রুটিং মিরান্ডা ক্যালিনোস্কি একটি জনপ্রিয় প্রশ্ন রয়েছে, যদিও সব প্রার্থীকে এ প্রশ্নটি করা হয় না।

প্রশ্নটি হলো, ‘আপনার কর্মজীবনের প্রথম দিন শেষে বাড়ি ফিরে ভাবছেন বিশ্বের সেরা চাকরিটি আপনি পেয়েছেন ? ওই দিনটিতে আপনি কি করেছিলেন ?

প্রশ্নটি দেখে মনে হচ্ছে খুবই সহজ। তবে, এ প্রশ্নের মাধ্যমে ফেসবুক দেখতে চায়, প্রার্থী আসলে কোন বিষয়ে আগ্রহী এবং আন্তরিক। ফেসবুক যা চাইছে প্রার্থীর মধ্যে তা আছে তো?

এই প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করার মাধ্যমে একজন কর্মীর পেশাজীবনের সেরা দিনের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য প্রকাশ করে। এতে করে চাকরিপ্রার্থীর কর্মআদর্শ উন্মোচিত হয়। প্রার্থীর অতীত অভিজ্ঞতা থাকলেও ফেসবুকের চাকরি সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা দিতেই এ প্রশ্ন করা হয়।

ফেসবুকের পিপল অপারেশন বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট লোরি গোলের বলেন, আসলে প্রার্থীদেরও জানা প্রয়োজন তারা কোথায় কাজ করতে এসেছেন, এখানে কি করতে হবে এবং পছন্দের কাজ সম্পর্কে আরো বেশি ধারণা কিভাবে পাওয়া সম্ভব ইত্যাদি।

২০০৮ সালে ফেসবুকের  হেড অব হিউম্যান রিসোর্স হওয়ার পর সব নিয়ম নতুন ভাবে সাজানো হয়েছে। ম্যানেজমেন্ট কনসালটেন্ট মার্কাস বাকিংহাম একে ‘ কার্যশক্তি-নির্ভর প্রতিষ্ঠান’ বলে পরিচিত করতে চাইছেন। এখানে ম্যানেজাররা কর্মী বাছাই বা তাকে প্রমোশন দিতে বিবেচনা না করে বরং কর্মীদের সেরা কাজটি বের করে আনার ব্যাপারে বিভিন্ন সুযোগ সৃষ্টি করেন।

Read More: